বিকাল ৩:৩৪ | বৃহস্পতিবার | ২রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

মোবাইল প্যাকেজে ‘শুভঙ্করের ফাঁকি’, ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ

মোবাইল ফোন অপারেটরদের প্যাকেজে গ্রাহকরা ‘শুভঙ্করের ফাঁকিতে’ পড়ছে কি না এবং তাদের অভিযোগের বিষয়ে কী ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে সে বিষয়ে প্রতিবেদন দিতে বিটিআরসিকে নির্দেশ দিয়েছে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ।

মঙ্গলবার ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের উপসচিব মাজেদা ইয়াসমীন স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত একটি চিঠি বিটিআরসি চেয়ারম্যানকে পাঠানো হয়।

এতে মোবাইল ফোন অপারেটরদের বিভিন্ন প্যাকেজের শর্ত যাচাই করে প্রতিবেদন দিতে আগামী ৩১ অগাস্ট সময় বেঁধে দেয়া হয়েছে।

বাংলাদেশে মোবাইল অপারেটরগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি গ্রাহক রয়েছে গ্রামীণফোনের। বিটিআরসির হিসাবে তাদের গ্রাহক সংখ্যা ৫ কোটি ৯৩ লাখ, একীভূত হওয়ার পর রবি-এয়ারটেল মিলে ৩ কোটি ৫০ লাখ, বাংলালিংকের ৩ কোটি ১৩ লাখ এবং রাষ্ট্রায়ত্ত অপারেটর টেলিটকের গ্রাহক সংখ্যা ৩৭ লাখ।

১৬ কোটি মানুষের বাংলাদেশে ইন্টারনেট গ্রাহক এখন প্রায় অর্ধেক, যাদের অধিকাংশই মোবাইল ইন্টারনেট ব্যবহার করেন। চলতি বছর ফেব্রুয়ারি শেষের তথ্য হিসেবে বর্তমানে দেশে ইন্টারনেট গ্রাহকের সংখ্যা ৬ কোটি ৭২ লাখ ৪৫ হাজার।

চিঠিতে বলা হয়, মোবাইল ফোন অপারেটররা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন আকর্ষণীয় প্যাকেজ অফার দিয়ে থাকে। এসব প্যাকেজ নিয়ে ভোক্তারা নানা অভিযোগ উত্থাপন করেন। ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ এবং অভিযোগ গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করা বাঞ্ছনীয়।

মোবাইল অপারেটরদের বিভিন্ন প্যাকেজ মূল্যায়ন করে বিভিন্ন অফারে নির্ধারিত মূল্য যৌক্তিকভাবে নির্ধারণ করা হয়েছে কি না, ভোক্তা কোনোভাবে প্রতারিত হচ্ছে কি না বা অফারে কোনো ‘শুভঙ্করের ফাঁকি’ রয়েছে কি না তা জানাতে বলা হয়েছে বিটিআরসিকে।

এছাড়া ভোক্তারা অভিযোগ করে থাকলে তার সমাধান হয়েছে কি না, না হয়ে থাকলে বিটিআরসি কী ব্যবস্থা নিয়েছে তাও জানাতে হবে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগকে।

গত বছর নভেম্বরে মোবাইল অপারেটরদের সেবা নিয়ে বিটিআরসির গণশুনানিতে নেটওয়ার্ক সমস্যা, কলড্রপ, ইন্টারনেটে ধীরগতি, প্যাকেজের নামে ‘প্রতারণা’ ও অহেতুক এসএমএস’র অভিযোগ করেন গ্রাহকরা।

গত বছর নভেম্বরে মোবাইল অপারেটরদের সেবা নিয়ে বিটিআরসির গণশুনানিতে নেটওয়ার্ক সমস্যা, কলড্রপ, ইন্টারনেটে ধীরগতি, প্যাকেজের নামে ‘প্রতারণা’ ও অহেতুক এসএমএস’র অভিযোগ করেন গ্রাহকরা।

দেশে ইন্টারনেট গ্রাহক সংখ্যা বাড়লেও গ্রাহকরা প্রায়ই উচ্চমূল্যের পাশাপাশি ইন্টারনেট ধীরগতি, নেটওয়ার্ক সমস্যা, সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়া ও ব্যবহারের চেয়ে বেশি টাকা কেটে নেয়া ইত্যাদি বিষয়ে অভিযোগ করে আসছেন।

গ্রাহকদের কথা বিবেচনা করে গত নভেম্বরে গণশুনানির আয়োজন করে বিটিআরসি।

মোবাইল অপারেটরদের সেবা নিয়ে বিটিআরসির গণশুনানিতে গ্রাহকরা নেটওয়ার্ক সমস্যা, কলড্রপ, ইন্টারনেটে ধীরগতি, প্যাকেজের নামে ‘প্রতারণা’ ও অহেতুক এসএমএস’র বিষয়গুলো তুলে ধরেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» আলীমের পিতার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন আ’লীগের কেন্দ্রীয় নেতা আবুল ফজল রাজু।

» কুমিল্লার ঘটনায় ইকবালকে যারা পাগল বলছে তারাই সাঈদীকে চাঁদে দেখেছে আবুল ফজন রাজু।

» শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় নেতা আবুল ফজল রাজু

» বর্তমান সরকার সব ধর্মীয় সম্প্রদায়ের মানুষের কল্যাণে পর্যাপ্ত কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে- পাট ও বস্ত্রমন্ত্রী

» শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন- মেম্বার মোরশেদ আলম।

» শারদীয় দূর্গাপূজা উপলক্ষে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মাঝে আনছর আলীর উপহার সামগ্রী বিতরণ।

» পুনরায় পাপ্পা গাজী ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক হওয়ায় অভিনন্দন জানিয়েছেন শরাফত আলী।

» পুনরায় পাপ্পা গাজী ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক হওয়ায় অভিনন্দন জানিয়েছেন দীন মোহাম্মদ দীলু।

» পাপ্পা গাজী ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক হওয়ায় আবুল ফজল রাজুর অভিনন্দন

» হাসিনা গাজীর জন্মদিনে দীন মোহাম্মদ দীলুর শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন

» বিনা স্বার্থে যে সবার সাথে তাল মিলিয়ে চলে সে ব্যক্তিত্বহীন – লিখন রাজ

» রূপগঞ্জে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে ও দুই পা ভেঙ্গে ১০ লাখ টাকা লুট

» পাট ও বস্ত্রমন্ত্রীর পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন উযযাপন আনছর আলীর।

» রাজধানীর খিলক্ষেতে ‘মোহাম্মদী ডেইরী এন্ড সুইটস্’ শো-রুমের তৃতীয় শাখা শুভ উদ্বোধন

» প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন দীন মোহাম্মদ দীলু

যোগাযোগ

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় –

বাসা#৪৯, রোড#০৮, তুরাগ, ঢাকা।
বার্তা কক্ষ : 01781804141
ইমেইল : timesofbengali@gmail.com

 

© এ.আর খান মিডিয়া ভিশন এর অঙ্গ প্রতিষ্ঠান

      সর্বস্বত্ব স্বাত্বাধিকার টাইমস্ অফ বেঙ্গলী .কম

কারিগরি সহযোগিতায় এ.আর খান হোস্ট

,

মোবাইল প্যাকেজে ‘শুভঙ্করের ফাঁকি’, ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ

মোবাইল ফোন অপারেটরদের প্যাকেজে গ্রাহকরা ‘শুভঙ্করের ফাঁকিতে’ পড়ছে কি না এবং তাদের অভিযোগের বিষয়ে কী ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে সে বিষয়ে প্রতিবেদন দিতে বিটিআরসিকে নির্দেশ দিয়েছে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ।

মঙ্গলবার ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের উপসচিব মাজেদা ইয়াসমীন স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত একটি চিঠি বিটিআরসি চেয়ারম্যানকে পাঠানো হয়।

এতে মোবাইল ফোন অপারেটরদের বিভিন্ন প্যাকেজের শর্ত যাচাই করে প্রতিবেদন দিতে আগামী ৩১ অগাস্ট সময় বেঁধে দেয়া হয়েছে।

বাংলাদেশে মোবাইল অপারেটরগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি গ্রাহক রয়েছে গ্রামীণফোনের। বিটিআরসির হিসাবে তাদের গ্রাহক সংখ্যা ৫ কোটি ৯৩ লাখ, একীভূত হওয়ার পর রবি-এয়ারটেল মিলে ৩ কোটি ৫০ লাখ, বাংলালিংকের ৩ কোটি ১৩ লাখ এবং রাষ্ট্রায়ত্ত অপারেটর টেলিটকের গ্রাহক সংখ্যা ৩৭ লাখ।

১৬ কোটি মানুষের বাংলাদেশে ইন্টারনেট গ্রাহক এখন প্রায় অর্ধেক, যাদের অধিকাংশই মোবাইল ইন্টারনেট ব্যবহার করেন। চলতি বছর ফেব্রুয়ারি শেষের তথ্য হিসেবে বর্তমানে দেশে ইন্টারনেট গ্রাহকের সংখ্যা ৬ কোটি ৭২ লাখ ৪৫ হাজার।

চিঠিতে বলা হয়, মোবাইল ফোন অপারেটররা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন আকর্ষণীয় প্যাকেজ অফার দিয়ে থাকে। এসব প্যাকেজ নিয়ে ভোক্তারা নানা অভিযোগ উত্থাপন করেন। ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ এবং অভিযোগ গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করা বাঞ্ছনীয়।

মোবাইল অপারেটরদের বিভিন্ন প্যাকেজ মূল্যায়ন করে বিভিন্ন অফারে নির্ধারিত মূল্য যৌক্তিকভাবে নির্ধারণ করা হয়েছে কি না, ভোক্তা কোনোভাবে প্রতারিত হচ্ছে কি না বা অফারে কোনো ‘শুভঙ্করের ফাঁকি’ রয়েছে কি না তা জানাতে বলা হয়েছে বিটিআরসিকে।

এছাড়া ভোক্তারা অভিযোগ করে থাকলে তার সমাধান হয়েছে কি না, না হয়ে থাকলে বিটিআরসি কী ব্যবস্থা নিয়েছে তাও জানাতে হবে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগকে।

গত বছর নভেম্বরে মোবাইল অপারেটরদের সেবা নিয়ে বিটিআরসির গণশুনানিতে নেটওয়ার্ক সমস্যা, কলড্রপ, ইন্টারনেটে ধীরগতি, প্যাকেজের নামে ‘প্রতারণা’ ও অহেতুক এসএমএস’র অভিযোগ করেন গ্রাহকরা।

গত বছর নভেম্বরে মোবাইল অপারেটরদের সেবা নিয়ে বিটিআরসির গণশুনানিতে নেটওয়ার্ক সমস্যা, কলড্রপ, ইন্টারনেটে ধীরগতি, প্যাকেজের নামে ‘প্রতারণা’ ও অহেতুক এসএমএস’র অভিযোগ করেন গ্রাহকরা।

দেশে ইন্টারনেট গ্রাহক সংখ্যা বাড়লেও গ্রাহকরা প্রায়ই উচ্চমূল্যের পাশাপাশি ইন্টারনেট ধীরগতি, নেটওয়ার্ক সমস্যা, সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়া ও ব্যবহারের চেয়ে বেশি টাকা কেটে নেয়া ইত্যাদি বিষয়ে অভিযোগ করে আসছেন।

গ্রাহকদের কথা বিবেচনা করে গত নভেম্বরে গণশুনানির আয়োজন করে বিটিআরসি।

মোবাইল অপারেটরদের সেবা নিয়ে বিটিআরসির গণশুনানিতে গ্রাহকরা নেটওয়ার্ক সমস্যা, কলড্রপ, ইন্টারনেটে ধীরগতি, প্যাকেজের নামে ‘প্রতারণা’ ও অহেতুক এসএমএস’র বিষয়গুলো তুলে ধরেন।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।

সর্বশেষ খবর



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



যোগাযোগ

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় –

বাসা#৪৯, রোড#০৮, তুরাগ, ঢাকা।
বার্তা কক্ষ : 01781804141
ইমেইল : timesofbengali@gmail.com

 

© এ.আর খান মিডিয়া ভিশন এর অঙ্গ প্রতিষ্ঠান

      সর্বস্বত্ব স্বাত্বাধিকার টাইমস্ অফ বেঙ্গলী .কম

কারিগরি সহযোগিতায় এ.আর খান হোস্ট