দুপুর ১:৪৯ | মঙ্গলবার | ১৩ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৩০শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

‘আমাদের মোবাইল কলরেট বিশ্বের তৃতীয় সর্বনিম্ন’

মোবাইল কলরেট নিয়ে বিভিন্ন মহল থেকে অভিযোগ থাকলেও তা নাকচ করে দিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। তিনি দাবি করেছেন, বর্তমানে বাংলাদেশের গ্রাহকরা বিশ্বের তৃতীয় সর্বনিম্ন রেটে মোবাইল ব্যবহার করছেন।

সোমবার বিকালে খুলনার শিরোমনিস্থ বাংলাদেশ কেবল শিল্প লিমিডেট পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী এই কথা বলেন।

ইন্টারনেটের স্পিড কম কেন এ সম্পর্কে প্রতিমন্ত্রী জানান, ফোরজি চালু হলে এই সমস্যা থাকবে না। তিনি জানান,  ফোরজি চালুর জন্য অর্থমন্ত্রণালয়ে প্রস্তাবনা দেয়া আছে এবং তা অনুমোদনসাপেক্ষে দ্রুত বাস্তবায়ন করা হবে।

তারানা হালিম বলেন, ‘মোবাইলের অপব্যবহার ও চুরি প্রতিরোধে আইএমই চিহ্নিতকরণ এবং অবৈধভাবে দেশে আসা মোবাইল ফোন বন্ধ করার ইকুইপমেন্ট বিটিআরসি সংগ্রহের পরিকল্পনা করছে।’

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট চালু হলে বর্তমানে টেলিযোগাযোগ খাতের সমস্যা অনেকাংশে কমে আসবে বলে প্রতিমন্ত্রী আশা প্রকাশ করেন।

পরিদর্শনকালে প্রতিমন্ত্রী ক্যাবল শিল্প কারখানায় অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবল উৎপাদনের বিভিন্ন প্রক্রিয়া সরেজমিনে পর্যবেক্ষণ করেন। এর আগে প্রতিমন্ত্রী ক্যাবল শিল্প লিমিটেডের নিজস্ব পুকুরে মাছের পোনা অবমুক্ত করেন এবং কারখানা প্রাঙ্গণে গাছের চারা রোপন করেন।

এসময় বাংলাদেশ কেবল শিল্প লিমিটেডের (বাকেশি) ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলাম, মহাব্যবস্থাপক (উৎপাদন পরিকল্পনা ও মাননিয়ন্ত্রণ) মো. আলাউদ্দিন আল-আজাদ, বাকেশির কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি মো. আব্দুল কাদের খানসহ বাকেশির কর্মকর্তা-কর্মচারী ও গণমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ ক্যাবল শিল্প লি. ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন একটি শিল্প প্রতিষ্ঠান। এটি ১৯৬৭ সালের তৎকালীন পাকিস্তান সরকার এবং পশ্চিম জার্মানির মেসার্স সিমেন্স এ.জি-এর যৌথ উদ্যোগে এই প্রতিষ্ঠানটি খুলনায় স্থাপিত হয়। ১৯৭২ সাল থেকে এ প্রতিষ্ঠানটি বাণিজ্যিকভাবে আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন টেলিযোগাযোগ কপার ক্যাবল উৎপাদন করে দেশের শতভাগ চাহিদা পূরণ করে আসছে। দেশের অভ্যন্তরে মোবাইল, ইন্টারনেট ও তথ্য প্রযুক্তির ব্যাপক প্রসারের পরিপ্রেক্ষিতে অবকাঠামো উন্নয়নে ক্রমবর্ধমান চাহিদার কথা বিবেচনা করে এই প্রতিষ্ঠানে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবল তৈরির প্লান্ট স্থাপন করা হয়। ২০১১ সালের জুলাই থেকে বাণিজ্যিকভাবে অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবল উৎপাদন শুরু করে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» বরুড়ায় অপকর্মে বাঁধা দেওয়ায় বাড়িতে হামলার অভিযোগ

» বরুড়ায় ইউপি সদস্যের হাতে মহিলাসহ ৩জন আহতের অভিযোগ

» স্বেচ্ছাসেবক লীগ পাবনা জেলা শাখার কমিটির অনুমোদন- ডাবলু সভাপতি ও রুহুল আমিন সাধারণ সম্পাদক

» পাবনায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণে বিরোধিতার প্রতিবাদে স্বেচ্ছাসেবক লীগের মানববন্ধন

» তুরাগে বেওয়ারিশ কুকুরের অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী

» উত্তরায় অস্ত্রসহ ৩ ছিনতাইকারীকে আটক

» তুরাগে নেই খেলার মাঠ ও বিনোদন কেন্দ্র, বাধাগ্রস্থ হচ্ছে শিশুর স্বাভাবিক বিকাশ

» নিখোজ সংবাদ

» এস এসসি পরীক্ষায় উর্ত্তীর্ণ মেধাবীদের শুভেচ্ছা ও অভিন্দন

» গায়ে কেরোসিন ঢেলে ‘গৃহবধূর’ আগুনে পুড়িয়ে হত্যা

» ‘ফণী’ বাংলাদেশে ৬ ঘণ্টা অবস্থান করবে

» বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল অতিক্রম করছে ফণী

» উত্তরায় বাসার ছাদ থেকে ২ গৃহকর্মীর লাশ উদ্ধার

» বাংলাদেশে মহান মে দিবসের গুরুত্ব

» আশুলিয়া কাঠগড়ায় স্বামীকে আটকে স্ত্রীকে গণধর্ষণ, গ্রেপ্তার ৪

যোগাযোগ

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় –

বাসা#৪৯, রোড#০৮, তুরাগ, ঢাকা।
বার্তা কক্ষ : 01781804141
ইমেইল : timesofbengali@gmail.com

 

© এ.আর খান মিডিয়া ভিশন এর অঙ্গ প্রতিষ্ঠান

      সর্বস্বত্ব স্বাত্বাধিকার টাইমস্ অফ বেঙ্গলী .কম

কারিগরি সহযোগিতায় এ.আর খান হোস্ট

,

‘আমাদের মোবাইল কলরেট বিশ্বের তৃতীয় সর্বনিম্ন’

মোবাইল কলরেট নিয়ে বিভিন্ন মহল থেকে অভিযোগ থাকলেও তা নাকচ করে দিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। তিনি দাবি করেছেন, বর্তমানে বাংলাদেশের গ্রাহকরা বিশ্বের তৃতীয় সর্বনিম্ন রেটে মোবাইল ব্যবহার করছেন।

সোমবার বিকালে খুলনার শিরোমনিস্থ বাংলাদেশ কেবল শিল্প লিমিডেট পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী এই কথা বলেন।

ইন্টারনেটের স্পিড কম কেন এ সম্পর্কে প্রতিমন্ত্রী জানান, ফোরজি চালু হলে এই সমস্যা থাকবে না। তিনি জানান,  ফোরজি চালুর জন্য অর্থমন্ত্রণালয়ে প্রস্তাবনা দেয়া আছে এবং তা অনুমোদনসাপেক্ষে দ্রুত বাস্তবায়ন করা হবে।

তারানা হালিম বলেন, ‘মোবাইলের অপব্যবহার ও চুরি প্রতিরোধে আইএমই চিহ্নিতকরণ এবং অবৈধভাবে দেশে আসা মোবাইল ফোন বন্ধ করার ইকুইপমেন্ট বিটিআরসি সংগ্রহের পরিকল্পনা করছে।’

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট চালু হলে বর্তমানে টেলিযোগাযোগ খাতের সমস্যা অনেকাংশে কমে আসবে বলে প্রতিমন্ত্রী আশা প্রকাশ করেন।

পরিদর্শনকালে প্রতিমন্ত্রী ক্যাবল শিল্প কারখানায় অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবল উৎপাদনের বিভিন্ন প্রক্রিয়া সরেজমিনে পর্যবেক্ষণ করেন। এর আগে প্রতিমন্ত্রী ক্যাবল শিল্প লিমিটেডের নিজস্ব পুকুরে মাছের পোনা অবমুক্ত করেন এবং কারখানা প্রাঙ্গণে গাছের চারা রোপন করেন।

এসময় বাংলাদেশ কেবল শিল্প লিমিটেডের (বাকেশি) ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলাম, মহাব্যবস্থাপক (উৎপাদন পরিকল্পনা ও মাননিয়ন্ত্রণ) মো. আলাউদ্দিন আল-আজাদ, বাকেশির কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি মো. আব্দুল কাদের খানসহ বাকেশির কর্মকর্তা-কর্মচারী ও গণমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ ক্যাবল শিল্প লি. ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন একটি শিল্প প্রতিষ্ঠান। এটি ১৯৬৭ সালের তৎকালীন পাকিস্তান সরকার এবং পশ্চিম জার্মানির মেসার্স সিমেন্স এ.জি-এর যৌথ উদ্যোগে এই প্রতিষ্ঠানটি খুলনায় স্থাপিত হয়। ১৯৭২ সাল থেকে এ প্রতিষ্ঠানটি বাণিজ্যিকভাবে আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন টেলিযোগাযোগ কপার ক্যাবল উৎপাদন করে দেশের শতভাগ চাহিদা পূরণ করে আসছে। দেশের অভ্যন্তরে মোবাইল, ইন্টারনেট ও তথ্য প্রযুক্তির ব্যাপক প্রসারের পরিপ্রেক্ষিতে অবকাঠামো উন্নয়নে ক্রমবর্ধমান চাহিদার কথা বিবেচনা করে এই প্রতিষ্ঠানে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবল তৈরির প্লান্ট স্থাপন করা হয়। ২০১১ সালের জুলাই থেকে বাণিজ্যিকভাবে অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবল উৎপাদন শুরু করে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।

সর্বশেষ খবর



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



যোগাযোগ

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় –

বাসা#৪৯, রোড#০৮, তুরাগ, ঢাকা।
বার্তা কক্ষ : 01781804141
ইমেইল : timesofbengali@gmail.com

 

© এ.আর খান মিডিয়া ভিশন এর অঙ্গ প্রতিষ্ঠান

      সর্বস্বত্ব স্বাত্বাধিকার টাইমস্ অফ বেঙ্গলী .কম

কারিগরি সহযোগিতায় এ.আর খান হোস্ট